টিপসমোবাইল ফোন

মোবাইল ফোন চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম

বর্তমান যুগে মোবাইল ফোন খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অনুষঙ্গ হয়ে উঠেছে। মোবাইল এতোটায় গুরুত্বপূর্ণ যে, এটি ছাড়া আমাদের দৈনন্দিন কার্যক্রম প্রায় অচল। বর্তমান সময়ে প্রায় ৮০% লোক স্মার্টফোন ব্যবহার করে। তবে অধিকাংশ ব্যবহারকারীদের মোবাইলের ব্যাটারি প্রায় এক বছরের মধ্যে নষ্ট হয়ে যায়। তাই সখের স্মার্টফোন ব্যবহারের সাথে এর ব্যাটারির দিকও নজর দেওয়া উচিত। নতুবা ব্যাটারির অবস্থা দিন দিন খারাপ হতে শুরু করে। বর্তমানে স্মার্টফোনের ব্যাটারিতে অনেক উন্নতি এসেছে। তবে ব্যাটারি ব্যাকাপ নিয়ে ব্যবহারকারীদের অভিযোগ থেকেই যায়।

কিন্তু মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম অনেকেই জানে না যার ফলশ্রুতিতে মোবাইল ফোনের ব্যাটারি ব্যাকাপের উপর বিরূপ প্রভাব পড়ছে। তাই সঠিক নিয়ম মেনে মোবাইল ফোনে চার্জ দেওয়া উচিত এতে মোবাইলের ব্যাটারি ভালো থাকে এবং অনেকদিন টিকেও থাকে। নতুবা মোবাইলের ব্যাটারিতে অল্প দিনের মধ্যেই সমস্যা দেখা দিতে পারে। যার প্রভাব পড়ে আপনার সখের ও প্রয়োজনীয় স্মার্ট ফোনেটিতেও। আর আপনাকে পড়তে হয় বাড়তি ভোগান্তিতে।

সঠিক নিয়মে মোবাইল ফোন চার্জ দেবার সুবিধা

মোবাইল ফোন আজকাল অতি প্রয়োজনীয় বিধায় এর ব্যাপকতাও আমাদের জীবনে অনেক বেশি। তাই সঠিক নিয়ম মেনে ফোন চার্জের বিষয়টি চলেই আসে। আর সঠিক নিয়মে মোবাইল ফোন চার্জ দেবার বেশ কিছু সুবিধাও রয়েছে। যেমন-

  • আপনার মোবাইল ফোনের ব্যাটারিকে সঠিকভাবে চার্জ দিলে ব্যাটারি দীর্ঘদিন ভালো থাকে
  • সহজে চার্জ ফুরিয়ে যায় না।
  • সঠিক চার্জের মাধ্যমে ওভার হিটিং হয় না।
  • আপনার মোবাইল ফোনের ব্যাটারিকে সঠিকভাবে চার্জ দিলে বারবার ফোনের ব্যাটারি পাল্টানোর ভোগান্তি কমে ও অর্থের অপচয় লাঘব হয়।

সঠিক নিয়মে মোবাইল ফোন চার্জ না দেবার অসুবিধা

আপনার গুরুত্বপূর্ণ মোবাইল ফোনটির জন্য ব্যাটারি ব্যাকআপ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই আপনি যদি সঠিক নিয়মে আপনার মোবাইল ফোন চার্জ না দিয়ে থাকেন তবে সেক্ষেত্রে বেশ কিছু অসুবিধাও রয়েছে। যেমন-

  • কিছুদিন পরপর ব্যাটারি চেঞ্জ করার ঝামেলা।
  • অর্থের অপচয়।
  • ব্যাটারি ফুলে যায়।
  • ফোনের চার্জার ও চার্জিং পোর্ট নষ্ট হবার সম্ভবনা।
  • ব্যাটারি ফুলে ব্লাস্ট হবার সম্ভাবনা থাকে।

মোবাইল ফোন চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম

অধিকাংশ মানুষই জানেন না ঠিক কোন উপায়ে মোবাইল ফোন চার্জে দিলে ব্যাটারি দীর্ঘদিন টিকে থাকে। মোবাইল ফোনের ব্যাটারিতে সঠিক নিয়ম মেনে চার্জ দিতে হয়। নয়তো ব্যাটারি চার্জ ধারন ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। অথবা ফোনের ব্যাটারি ফুলে যেতে পারে।

তাই মোবাইল ফোন চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম জেনে নিন-

মোবাইল ফোনে ১০০% চার্জ নয় 

অধিকাংশ মোবাইল ফোন ইউজার ফোন ১০০% দিতে পছন্দ করেন। অর্থাৎ সম্পূর্ণ চার্জ করে ফোন চার্জ আনপ্লাগ করে থাকেন। কারণ ইউজারদের  দিনের বাকিটা সময় ফোন ব্যবহারে ফুল চার্জ করা জরুরি হয়ে থাকে। কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না ব্যাটারির জন্য এটি ভীষণ ক্ষতিকারক একটি  অভ্যাস। আবার অনেক সময় দেখা যায় অনেকে বিভিন্ন কারণে ফোনের চার্জ শূণ্য করে তবেই ফোন চার্জ দেয়। এই অভ্যাসটিও কিন্তু ব্যাটারির জন্য আদর্শ কোনো অভ্যাস নয়।

আপনার স্মার্টফোনে যখন ৪০-৫০% চার্জ রয়েছে ঠিক তখন চার্জ দিন। তবে  ৯০%-৯৫% এর বেশি চার্জ দেওয়া যাবে না। এতে ফোনের ব্যাটারির চার্জ ধারন ক্ষমতা অনেক দিন টিকে থাকে। এভাবে ফোনের ব্যাটারি আয়ুও বাড়াতে পারেন।

ফোন আনপ্লাগ করা

অনেকেরই ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে যে, মোবাইল ফোন সম্পূর্ণ চার্জ করা ব্যাটারির জন্য ভালো। কিন্তু এটি সম্পূর্ণ ভুল পদ্ধতি। এজন্য অনেকে সারারাত ফোন চার্জ দিয়ে রাখেন। এতে ব্যাটারির লাইফ বাড়াতে গিয়ে উল্টে ব্যাটারির লাইফ টাইম কমে যায়। তাই ওভারনাইট চার্জ না দিয়ে নির্দিষ্ট সময়ে চার্জ দিয়ে ফোনে আনপ্লাগ করুন। তাই প্রয়োজনীয় চার্জ হয়ে গেলে চার্জ দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।

চার্জ ২০% এর কম নয় 

অনেক সময় আমরা বিভিন্ন কারণে ফোনের চার্জ শূণ্যের কোঠায় নামিয়ে আনি। যেমন- গেমিং, ভিডিও দেখা, সোশ্যাল মিডিয়া স্ক্রলিং ইত্যাদি কারণে আমরা আমাদের ফোনের চার্জের দিকে নজর দিতে ভুলেই যায়। কিন্তু এ বিষয়ে আমাদের একটু হলেও সচেতন হতে হবে। স্মার্টফোনের চার্জ ২০% এর কোঠায় এলেই ফোন চার্জে দেওয়া উচিত। এতে ব্যাটারির আয়ু বাড়বে।

চার্জে বসিয়ে ফোন ব্যবহার

ফোনের ব্যাটারি দ্রুত নষ্ট হবার অন্যতম কারণ হলো চার্জে বসিয়ে ফোনের ব্যবহার। আমরা অনেকেই যেমন- ফোন চার্জে বসিয়ে ফোন ব্যবহার করে থাকি। গেমিং, সোশ্যাল মিডিয়া স্ক্রলিং, ভিডিও দেখা, গান শোনা, ফোনে কথা বলা প্রভৃতি। কিন্তু এটি একদমই উচিত নয়। এতে ব্যাটারির আয়ুষ্কাল দ্রুত কমে যায়।

চার্জে বসিয়ে ফোন ব্যবহার করলে ডিসপ্লে, প্রসেসর এবং অন্যান্য অংশে ব্যাটারির থেকে পাওয়ার ইউজ করা হয়। এর কারণে ফোন ওভার হিটিং হয়ে থাকে। ফলশ্রুতিতে খুব অল্প সময়ে ব্যাটারি নষ্ট হবার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। ফোন ওভার হিটিং হলে ফোন ব্লাস্ট হবার সম্ভবনাও বেড়ে যায়। এতে ঘটতে পারে মারাত্মক দুর্ঘটনা। 

ব্যাটারি অপটিমাইজেশন অ্যাপের ব্যবহার

আমরা অনেক সময় বিভিন্ন কারণে অ্যাপস ডাউনলোড করি। সেগুলো হয়তো কখনও একবার ব্যবহার করা হয়, কখনও কৌতুহল বশতঃ আবার কখনও কিছুদিন ব্যবহার করে ওসব অ্যাপের প্রয়োজন ফুরিয়ে যায়। কিন্তু এসব অ্যাপগুলো প্রয়োজন ছাড়া আমাদের ফোনে থেকেই যায়। আবার কখনও ব্যাকগ্রাউন্ডেও থেকে যায়। এগুলো ফোনের চার্জ শেষ হবারও কারণ। এক্ষেত্রে ব্যাটারি অপটিমাইজেশন অ্যাপ ব্যবহার করা যায়। কারণ মোবাইল ফোন গরম হয়ে গেলে এই অ্যাপ ব্যাটারি ঠান্ডা করতে সহায়তা করে। এর ফলে মোবাইলের চার্জ দ্রুত শেষ হয়ে যাবার সম্ভবনা থাকে না। যা আপনার ফোনের ব্যাটারির আয়ু বৃদ্ধিতে সহায়ক।

অন্য চার্জারের ব্যবহার

অনেক স্মার্টফোন ব্যবহারী ফোনের চার্জার নষ্ট হয়ে গেলে লো-কোয়ালিটির চার্জার ব্যবহার করে থাকেন। বাজারের সস্তা মানের চার্জার দিয়ে ফোন চার্জ দেওয়া মানেই ফোনের ক্ষতি। মোবাইলের চার্জ সঠিক নিয়মে দিতে হলে অবশ্যই স্ব স্ব ফোনের চার্জার ব্যবহার করা উচিত। চার্জার নষ্ট হয়ে গেলে নির্দিষ্ট ব্র্যান্ডের চার্জার কিনতে হবে। এক্ষেত্রে মোবাইল কোম্পানির সার্ভিস সেন্টার থেকে অরিজিনাল চার্জার কিনতে পারেন। এতে ব্যাটারিও ভালো থাকে। কমদামি ও নন-ব্র্যান্ড চার্জার দিয়ে চার্জ দিলে অনেক সময় মারাত্মক দুর্ঘটনাও ঘটতে পারে। তাই এক্ষেত্রে অবশ্যই সচেতন হতে হবে।

ওভারহিটিং

আপনি আপনার ফোন কোন পরিবেশে চার্জ দিচ্ছেন এটি অবশ্যই খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। মোবাইল ফোন সবসময় একটি ব্যালেন্সড টেম্পারেচারে চার্জ দেওয়া উচিত। স্যাঁতসেঁতে পরিবেশে ফোন চার্জ করা উচিত নয়। আবার খুব গরম স্থানেও মোবাইল রেখে চার্জ দেওয়া ঠিক না। যেমন- সূর্যের আলোয়, পিসির ওপর। কারণ এতে লিথিয়াম আয়রন ব্যাটারির চার্জ ক্যাপাসিটি কমাবে। আবার অতিরিক্ত ঠান্ডা স্থানেও ফোন চার্জ দেওয়া ঠিক না। এতে ফোনের ব্যাটারির উপর খারাপ প্রভাব পড়ে। অপেক্ষাকৃত ঠান্ডা স্থান নির্বাচন করে ফোন চার্জে দেওয়া উচিত। 

উপসংহার

পরিশেষে বলা যায় যে, মোবাইল ফোন আমাদের জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে উঠেছে। তাই এর সঠিক ব্যবহার ও যত্নও প্রয়োজন। সঠিক নিয়মে মোবাইল ফোন চার্জে দিলে ফোন যেমন ভালো থাকে তেমনি ফোনের ব্যাটারিও ভালো থাকে। তাই ফোনকে দীর্ঘদিন টিকিয়ে রাখতে হলে সঠিক নিয়মে ফোন চার্জ দেবার কোনো বিকল্প নেই। 

সচারাচর জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

১. নতুন ব্যাটারি চার্জ দেবার নিয়ম কি?

উত্তর: নতুন ফোনের ব্যাটারি ১০০% চার্জ দেওয়া ঠিক নয়। ৮০% চার্জ হবার পর চার্জ দেওয়া ঠিক নয়। 

২. ফোনের চার্জ কখন দেবেন?

উত্তর: আপনার স্মার্টফোনটি সক্রিয় রাখতে সচেতন ভাবে চার্জ দিতে হয়। স্মার্টফোন নিয়ম মেনে চার্জ দিলে নিশ্চিন্তে দীর্ঘদিন ব্যবহার করা যায়। ফোনের ব্যাটারির চার্জ ৫০% হওয়ার আগে ফোন চার্জে দেয়া যাবে না। আবার কমপক্ষে ২০% চার্জ থাকা অবস্থায় চার্জ করে নিতে হবে।

৩. ফোনের চার্জ বেশি রাখার উপায় কি? 

উত্তর: ফোনের চার্জ বেশি রাখার জন্য অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ আনইনস্টল করুন। এছাড়া ব্লুটুথ, ওয়াইফাই, হটস্পট, ডেটা কানেকশন প্রয়োজন শেষে বন্ধ করে রাখাই ভালো। তাছাড়া ফোনের ডিসপ্লের ব্রাইটনেস যতটা সম্ভব কমিয়ে রাখুন। এছাড়াও ডিসপ্লে টাইম আউট যথা সম্ভব কমিয়ে রাখুন।

৪. বন্ধ করে মোবাইল চার্জে দিলে কি কোনো সমস্যা হয়?

উত্তর: মোবাইল ফোন বন্ধ করে চার্জ দেওয়া ভালো। তাছাড়া ফোন বন্ধ অবস্থায় চার্জে দিলে কোনো সমস্যা হয় না। মোবাইল ফোন অন করে চার্জে দিলে বিভিন্ন অ্যাপস চালু থাকে। যার কারণে চার্জ কমতে থাকে। তাছাড়া ফোনের ব্রাইটনেসের জন্যও ফোনের চার্জ কমতে থাকে।

৫. মোবাইলে চার্জ না হলে করণীয় কী?

উত্তর: ফোন একেবারে চার্জ না হলে কাস্টমার কেয়ার বা সার্ভিস পয়েন্টে দিতে হবে। ব্যাটারি বা চার্জার পরিবর্তন করতে হবে।

রিলেটেড আর্টিকেল গুলো

Back to top button