অ্যাপমোবাইল অ্যাপস

আসল ভিটমেট অ্যাপ ডাউনলোড করুন মোবাইল ও কম্পিউটারে {২০২২}

সেরা ভিডিও ডাউনলোডার অ্যাপ ভিটমেট ডাউনলোড

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে সোশ্যাল মিডিয়াগুলো তাদের কপিরাইট পলিসির কারনে ভিডিও সরাসরি ডাউনলোড করার অনুমতি দেয়না বা এরকম কোন অপশন রাখেনি৷ কিন্তু কিছু অ্যাপ ব্যবহার করে এসব ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। এসব অ্যাপের মধ্যে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় হচ্ছে ভিটমেট। অ্যাপটি আপনি মোবাইল ও ল্যাপটপ বা কম্পিউটারে ডাউনলোড ও ইন্সটল করে নিয়ে খুব সহজেই অডিও, ভিডিও, অ্যাটাচমেন্ট ফাইল ডাউনলোড করতে পারবেন। তবে এর অনেক নকল ভার্সন ও রয়েছে। আজকের এ লেখাটিতে ভিটমেট অ্যাপ কি, ভিডমেট অ্যাপের সুবিধা ও আসল ভিটমেট চেনার উপায় এবং ডাউনলোড পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

সূচিপত্রঃ

ভিটমেট কি?

ভিটমেট হলো একটি সফটওয়্যার যা দিয়ে প্রধানত ভিডিও ডাউনলোড এর জন্য ব্যবহার হয়ে থাকে। তবে ভিডিও ছাড়াও গেমস ও অন্যান্য অনেক কিছুই এটি দ্বারা ডাউনলোড করা সম্ভব৷ এটি খুবই ইউজার ফ্রেন্ডলি হওয়ায় খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই এটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে৷ বিশ্বের জনপ্রিয় যত সোশ্যাল মিডিয়া রয়েছে যেমন ফেসবুক, ইউটিউব বা ইন্সটাগ্রাম, এসব থেকে ভিডিও অনলাইনে দেখা গেলেও বা সেভ করা গেলেও, মেমরিতে ডাউনলোড করার কোন অপশন থাকে না। কিন্তু ভিটমেট অ্যপ ব্যবহার করে খুব সহজেই এসব সাইটে থাকা যেকোন ভিডিও ডাউনলোড করা যায়।

ভিটমেট অ্যাপ ব্যবহারের সুবিধা

১) খুব দ্রুত সময়ে ভিডিও ডাউনলোড হয়। 

২) বিভিন্ন রেজুলেশনে ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। একেক রেজুলেশনের জন্য ভিডিওর ফাইল সাইজ ও ভিন্ন ভিন্ন হয়, যার ফলে যদি কারো ডাটা কম থাকে তবে সে চাইলে কম রেজুলেশনের ভিডিও ডাউনলোড করতে পারে, এতে তার ডাটা খরচ কম হবে। রেজুলেশন বাড়ার সাথে সাথে ভিডিওর ফাওল সাইজ ও বৃদ্ধি পায়। ভিটমেট ব্যবহার করে 144p, 360p, 720p, 1080p এমন বিভিন্ন রেজুলেশনে ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। 

৩) ভিডিও থেকে শুধুমাত্র অডিও ডাউনলোড করা যায়, আলাদা করে আর কনভার্টার অ্যাপ প্রয়োজন হয়না। কোন ইউটিউব গানের ভিডিওতে আপনার যদি শুধু MP3 বা MP4 আকারে শুধু অডিওটি প্রয়োজন হয়, তাহলে ভিটমেট দিয়ে ভিডিও বাদ দিয়ে শুধু অডিও ডাউনলোড করার ও অপশন রয়েছে।

৪) ভিটমেট থেকে বিভিন্ন গেমস বা অন্যান্য এপ্লিকেশন ডাউনলোড করা যায়। 

৫) ভিটমেট অ্যাপে ইউটিউবের বাইরেও বিভিন্ন ওয়েব সিরিজ, মুভি ইত্যাদি ডাউনলোড করার অপশন থাকে। ফলে টরেন্টের মতো ভিটমেট অ্যাপ দিয়েও চাইলে এসব মুভি বা ওয়েব সিরিজ নামিয়ে দেখতে পারেন কিংবা সরাসরি অনলাইনেও দেখতে পারেন।

৬) ভিটমেট অ্যাপ ব্যবহার করে আপনার স্টোরেজের বিভিন্ন ভিডিও, অডিও, অ্যাপস ইত্যাদি লক করা সম্ভব। এর ফলে লক করা সেসব ভিডিও বা অ্যাপস শুধুমাত্র পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনিই এক্সেস করতে পারবেন, আর তা নরমাল ফোনের স্টোরেজে ধরাও পড়বেনা।

৭) ভিটমেটের মাধ্যমে একজনের ডিভাইস থেকে অন্যজনের ডিভাইসে ভিডিও, অডিও, অ্যাপস ইত্যাদি বিনিময় করা সম্ভব। 

৮) ইউটিউব, ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম এসব আলাদা আলাদা সাইটের জন্য আলাদা আলাদা ডাউনলোডার অ্যাপ আপনাকে ব্যবহার করতে হলো না। একটি অ্যাপ দিয়েই সব ধরনের সাইট থেকেই ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন।

৯) ভিটমেট অ্যাপ দিয়ে আপনি ইউটিউব ফেসবুক এগুলো থেকে যেমন ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন তেমনি এসব সাইট সাধারনভাবে চালাতেও পারবেন, অর্থাৎ এটিকে ব্রাউজার হিসেবেও ব্যবহার করতে পারবেন।

আসল ভিটমেট অ্যাপ চেনার উপায়

সাধারনত আমরা কোন অ্যাপের আসল নকল নিয়ে অত মাথা ঘামাই না, কারন অধিকাংশ অ্যাপ ই গুগল প্লেস্টোর থেকে ডাউনলোড করি, সেখানে নকল অ্যাপ থাকার সম্ভাবনা কম থাকে আর ডাউনলোড সংখ্যা দিয়েই বুঝা যায়৷ কিন্তু ভিটমেট অ্যাপটি প্লেস্টোরে পাওয়া যাবেনা। এর কারনটিও অতি স্পষ্ট, ইউটিউব, ফেসবুক এসব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করা কপিরাইট এর পরিপন্থী হওয়ায় গুগল প্লেস্টোর এর নিয়মের বিরুদ্ধে যায়, ফলে ভিটমেটকে প্লেস্টোরে পাওয়া যায়না। তবে ভিটমেট নামের কাছাকাছি নামের অনেক অ্যাপ প্লেস্টোরে পাওয়া যায়, এবং সেগুলো সবই নকল অ্যাপ। আপনি যদি ভিটমেট এর সর্বোচ্চ সুবিধা ভোগ করতে চান এবং সহজে ব্যবহার করতে চান তবে আপনাকে অবশ্যই আসল ভিটমেট ব্যবহার করতে হবে। যেসকল উপায়ে আপনি চিনতে পারবেন আসল না নকলঃ

  • ভিটমেট কখনোই গুগল প্লেস্টোরে পাওয়া যাবেনা। তাই প্লেস্টোরে এরকম নামের যতগুলো অ্যাপ আছে, সেগুলো নকল বিধায় এগুলো ডাউনলোড করবেন না।
  • ভিটমেটের ফাইল সাইজ অত বেশি হয়না আর এটি সাধারন অ্যাপের চেয়ে বেশি কোন পারমিশন চায়না। যদি কোন ওয়েবসাইটে এরকম অ্যাপ দেওয়া থাকে যার ফাইল সাইজ অনেক বেশি বা একেবারেই কম আবার অনেক ধরনের পারমিশন চায়, তবে সেটি আসল নয়। 
  • আসল ভিটমেট অ্যাপটি ডাউনলোড করার সবচেয়ে নিরাপদ উপায় হচ্ছে ভিটমেটের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নেওয়া। এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটটি হচ্ছে vidmateapp.com 

কেন আসল ভিটমেট ব্যবহার করতে হবে?

  • আসল ভিটমেট ছাড়া বাকি অ্যাপগুলোতে আপনি অত স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে ব্যবহার করতে পারবেন না। সেসব অ্যাপ থেকে ভিডিও ডাউনলোড এর প্রক্রিয়া অনেক জটিল।
  • ভিটমেটে ডাউনলোড স্পিড বেশ দ্রুত গতির হলেও অন্যান্য নকল ভিটমেট অ্যাপের ক্ষেত্রে তা অনেক ধীরগতির হয়ে থাকে।
  • আসলটির মতো এতে ভিডিও ডাউনলোড এর সময় ভিন্ন ভিন্ন এতগুলো রেজুলেশনে ভিডিও ডাউনলোড সম্ভব হয়না৷
  • আসল ভিটমেটে যেমন বিভিন্ন মুভি, ওয়েব সিরিজ, গেমস ইত্যাদির বিশাল কালেকশন থাকে অন্যান্য একই নামধারী নকল অ্যাপগুলোতে তা থাকে না বা খুব কম সংখ্যক থাকে। 
  • নকল অ্যাপগুলোতে প্রচুর পপ-আপ অ্যাড দেখায়, যা আপনার কাছে অ্যাপটি ব্যবহারের সময়ে বিরক্তির কারন হবে।
  • যেহেতু ভিটমেট অ্যাপ প্লেস্টোর এর বাইরে থেকে ডাউনলোড করতে হয়, তাই আসলটি বাদ দিয়ে কোন ওয়েবসাইট থেকে নকল অ্যাপ ডাউনলোড করলে তা দ্বারা আপনার ডিভাইসের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। যেমন সে অ্যাপটি একটি মালওয়্যার ভাইরাস হতে পারে, যা আপনার একাউন্ট এর তথ্য চুরি বা অন্যান্য ক্ষতি করতে পারে।

অর্থাৎ, ভিটমেটের সকল সুবিধা পাওয়ার জন্য এবং সহজে ও নিরাপদে ভিডিও / অ্যাপ ডাউনলোডের জন্য নকল নামের অ্যাপগুলোকে সতর্কতার সাথে এড়িয়ে আসল অ্যাপটিই ব্যবহার করতে হবে।

চলুন আমরা ধাপে ধাপে জেনে নেই কিভাবে আপনি আপনার মোবাইলে আসল ভিটমেট অ্যাপটি সহজেই ডাউনলোড ও ইন্সটল করবেন মোবাইল ও ল্যাপটপ বা কম্পিউটারে.

আসল ভিডমেট অ্যাপের ফিচার

অ্যাপের নামভিডমেট অ্যাপ
ভার্শন৪.৫০৩০
অ্যাপ সাইজ১২.৬৮ এম্বি
এন্ড্রয়েড ভার্শনন্যূনতম ৪.৩
ডেভেলপারভিডমেট
ক্যাটেগরিবিনোদন
সর্বশেষ হালনাগাদ২১ আগস্ট, ২০২১
ইন্সটল হয়েছে১০,০০০,০০ বারের অধিক
কন্টেন্ট রেটিংবারো বছরের ঊর্ধ্বে
মূল ফিচারভিডিও ডাউনলোড

কিভাবে মোবাইলে আসল ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড করবেন?

ধাপ ১ঃ

আসল ভিটমেট ডাউনলোডের জন্য প্রথমে Google.com এ যান এবং সার্চ করুন “Vidmate app official” লিখে। এরপর প্রথমে আসা অফিশিয়াল সাইটটি তে ক্লিক করুন, অথবা এই লিঙ্ক থেকে ওপেন করতে পারেনঃ https://www.vidmateapp.com/bn

যেভাবে মোবাইলে ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড করবেনঃ ধাপ-১

ধাপ ২ঃ

সাইট টি ওপেন হলে ক্লিক করুন “Official Download” এ।

যেভাবে মোবাইলে ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড করবেনঃ ধাপ-২

ধাপ ০৩ঃ

এবার ভিটমেট সফটওয়্যারটি আপনি আপনার মোবাইলের কোন জায়গায় ফাইলটি সংরক্ষণ করতে চান সেটি নির্বাচন করুন এবং অকে করুন।

যেভাবে মোবাইলে ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড করবেনঃ ধাপ-৩

ধাপ ০৪ঃ

তারপর শুরু হয়ে গেলো ভিটমেট ডাউনলোড।

যেভাবে মোবাইলে ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড করবেনঃ ধাপ-৪

ধাপ ০৫ঃ

এরপর অ্যাপটি ডাউনলোড হয়ে গেলে ফাইলটি ওপেন করলে এরকম আসবে, এবার “Settings” এ ক্লিক করুন।যেভাবে মোবাইলে ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড করবেনঃ ধাপ-৫

এরপরে “Allow from this source” এ ক্লিক করুন।

ধাপ ০৬ঃ

এবার ক্লিক করুন “Install” এ।

যেভাবে মোবাইলে ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড করবেনঃ ধাপ-৬

ধাপ ০৭ঃ

এবার ফাইলটি ইন্সটল হচ্ছে, কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন।

যেভাবে মোবাইলে ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড করবেনঃ ধাপ-৭

ধাপ ০৮ঃ

অ্যাপ ইন্সটল হয়ে গেলে “Open” এ ক্লিক করুন।

যেভাবে মোবাইলে ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড করবেনঃ ধাপ-৮

ধাপ ০৯ঃ

এবার ওপেন হয়ে গেলে “Allow” তে ক্লিক করুন

যেভাবে মোবাইলে ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড করবেনঃ ধাপ-৯

ধাপ ১০ঃ

এরপর আপনি আপনার পছন্দমতো টিভিশো, খেলা, গান ও সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ফাইল ডাউনলোড করতে পারবেন।

যেভাবে মোবাইলে ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড করবেনঃ ধাপ-১০

আসল ভিটমেট অ্যাপ কিভাবে ডাউনলোড করবেন ল্যাপটপ বা কম্পিউটারে?

ধাপ ১ঃ

ল্যাপটপ বা কম্পিউটারে অরিজিনাল ভিটমেট ডাউনলোড করতে হলে প্রথমে Google.com এ যান এবং “Softnic” লিখে সার্চ করুন, এবং প্রথমে আসা ওয়েবসাইটে ক্লিক করুন।

ভিটমেট অ্যাপসটি যেভাবে ডাউনলোড করবেন ল্যাপটপ বা কম্পিউটারেঃ ধাপ-১

ধাপ ২ঃ

এবার ওয়েবসাইটটি ওপেন হলে ডান পাশে সার্চ বারে “Vidmate for pc” লিখে সার্চ করুন।

ভিটমেট অ্যাপসটি যেভাবে ডাউনলোড করবেন ল্যাপটপ বা কম্পিউটারেঃ ধাপ-২

ধাপ ০৩ঃ

এবার সার্চ রেজাল্টে আসা প্রথম অ্যাপএ ক্লিক করুন।

ভিটমেট অ্যাপসটি যেভাবে ডাউনলোড করবেন ল্যাপটপ বা কম্পিউটারেঃ ধাপ-৩

ধাপ ০৪ঃ

এবার “Free Download” বাটনটি তে ক্লিক করুন।

ভিটমেট অ্যাপসটি যেভাবে ডাউনলোড করবেন ল্যাপটপ বা কম্পিউটারেঃ ধাপ-৪

ধাপ ০৫ঃ

এবার পপআপ হয়ে এরকম আসলে “No Thanks” এ ক্লিক করুন।

ভিটমেট অ্যাপসটি যেভাবে ডাউনলোড করবেন ল্যাপটপ বা কম্পিউটারেঃ ধাপ-৫

ধাপ ০৬ঃ

এবার আবার ক্লিক করুন “Free Download for Windows” বাটনটি তে।

ভিটমেট অ্যাপসটি যেভাবে ডাউনলোড করবেন ল্যাপটপ বা কম্পিউটারেঃ ধাপ-৬

ধাপ ০৭ঃ

এবার অরিজিনাল ভিটমেট ডাউনলোড শুরু হয়ে যাবে।

ভিটমেট অ্যাপসটি যেভাবে ডাউনলোড করবেন ল্যাপটপ বা কম্পিউটারেঃ ধাপ-৭

ধাপ ০৮ঃ 

এরপর ভিটমেট সফটওয়্যারটি আপনি আপনার কম্পিউটারের কোন জায়গায় রাখতে চান ফাইলটি সেটি নির্বাচন করুন।

ভিটমেট অ্যাপসটি যেভাবে ডাউনলোড করবেন ল্যাপটপ বা কম্পিউটারেঃ ধাপ-৮

ধাপ ০৯ঃ

এরপর আপনার কম্পিউটারের দেয়া কমান্ড অনুযায়ী ইন্সটল করে নিন এবং ব্যাবহার করুন ভিটমেট অ্যাপসটি আপনার ল্যাপটপ বা কম্পিউটারে।

শেষকথা

সোশ্যাল মিডিয়াগুলো সরাসরি তাদের প্লাটফর্ম থেকে ভিডিও ডাউনলোড এর অপশন না রাখলেও আমাদের নানান কারনে এসব ভিডিওর অফলাইনে প্রয়োজন হতে পারে৷ আমাদের সাধারন এ সমস্যাটির সমাধান করে দেয় ভিটমেট অ্যাপটি৷ তবে প্লেস্টোর এর পলিসির বাইরে যাওয়ায় এটিকে যেহেতু প্লেস্টোরে পাওয়া যায়না, তাই আলাদাভাবে ওয়েবসাইট থেকে আসল ভিটমেট কোনটি তা বেছে নিয়ে ডাউনলোড করতে হবে। এ লেখাটিতে আসল ভিটমেট অ্যাপ চেনার উপায়, অ্যাপটির সুবিধাসমূহ এবং ডাউনলোড পদ্ধতি বর্ননা করা হয়েছে। এ তথ্যগুলো আপনার অ্যাপটি ব্যবহার করার ক্ষেত্রে কাজে লাগবে এবং আপনি উপকৃত হবেন এমনটাই কামনা করছি।

অনবরত জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

ভিটমেট অ্যাপ ব্যাবহারের জন্য কি ফোন রুট করার প্রয়োজন আছে?

উত্তরঃ না, রুট না করেই আপনার মোবাইলে ব্যাবহার করতে পারবেন।

ভিটমেট অ্যাপ কি কম্পিউটারে এবং আইফোনে ব্যবহার সম্ভব?

উত্তরঃ না, ভিটমেট অ্যাপের এখনো অব্ধি কোন পিসি ভার্সন বা IOS ভার্সন নেই, তাই এটি কেবল এন্ড্রয়েডেই ব্যবহার করা সম্ভব। তবে উপরে দেখানো পদ্ধতি অনুযায়ী কম্পিউটার এবং ল্যাপটপের জন্য ইমুলেটরে ব্যাবহার করতে পারেন।

ভিটমেটের কোন ভার্সনটি ব্যবহার করবো?

উত্তরঃ ভিটমেট অ্যাপটি প্রতিনিয়তই নতুন আপডেট এনে থাকে। এর ফলে ইউটিউব বা অন্যান্য ওয়েবসাইট এর ভিডিও ডাউনলোড করার নতুন ফিচার এড হয় ও কোনো সমস্যা থাকলে ঠিক করা হয়। তাই অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে এর লেটেস্ট ভার্সনটিই ব্যবহার করা উত্তম। 

ভিটমেট অ্যাপ কি HD ভিডিও ডাউনলোড কর‍তে পারে?

উত্তরঃ যদি যেই সোর্স থেকে আপনি ভিডিও ডাউনলোড করতে চাচ্ছেন সেখানে HD তে আপলোড করা হয়ে থাকে, তবে ভিটমেট ব্যবহার করে কোনরকম রেজুলেশনের কোয়ালিটি লস ছাড়াই HD ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। তবে সোর্সেই যদি তা লো রেজুলেশনে থাকে সেক্ষেত্রে অবশ্যই ভিটমেট দিয়ে সর্বোচ্চ সেই রেজুলেশনেই ডাউনলোড করতে হবে।

 

 

বিঃদ্রঃ আমরা ভিটমেটের কোন অফিসিয়াল সাইট না এবং আমাদের সাথে ভিটমেট অ্যাপ বা তাদের কোন ডেভেলপারের সাথে কোন সম্পর্ক নেই। অ্যাপটি ব্যবহারের উপর আমরা কোন দায়বদ্ধতা রাখি না।

রিলেটেড আর্টিকেল গুলো

Back to top button