মোবাইল ফোনস্যামসাং

২০২১ সালে স্যামসাং-এর সবচেয়ে দামি ৫ টি মোবাইল ফোন

বর্তমান যুগে আমাদের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় গেজেটটি হল আমাদের হাতের মোবাইল ফোন। এই একটি মাত্র ডিভাইস পুরো জগতটাকে আমাদের হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে। কথা বলা থেকে শুরু করে রাস্তার যানজটের অবস্থা দেখা, ম্যাপ দেখে কোন অচেনা জায়গা খুঁজে বের করা, গান শোনা, ভিডিও দেখা, সিনেমা দেখা, গেম খেলা কী করি না আমাদের মোবাইল ফোন দিয়ে!

কিন্তু কোন মোবাইল ব্র্যান্ডটি সবচেয়ে সেরা, কোন মোবাইলগুলো সবচেয়ে ভাল ও দেখতে সুন্দর এসব নিয়ে আছে অনেক তর্ক-বিতর্ক। তবে যত ব্র্যান্ডই বাজারে আসুক না কেন আমরা সবাই একটি পছন্দের ব্র্যান্ডকেই প্রাধান্য দিয়ে থাকি।

যেমন, এত ব্র্যান্ডের ভিড়ে আমাদের অনেকেরই প্রথম পছন্দ বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় ব্র্যান্ড স্যামসাং। আর সেজন্যই আজ আমরা স্যামসাং-এর কিছু সবচেয়ে দামি মোবাইলগুলোর তালিকা তুলে ধরছি। এখানে আমরা এই মডেলগুলোর ফিচার ও তাদের দাম নিয়ে আলোচনা করবো, যাতে করে আপনারা নিজেরাই বুঝতে পারবেন কেন এই মোবাইলগুলোর দাম এত বেশি!!!

*আর্টিকেলটিতে দেয়া মূল্য বিক্রেতা ভেদে তারতম্য হতে পারে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ (Samsung Galaxy Z Flip)

দামঃ

অফিসিয়াল ৳১৮৯,৯৯৯
আনঅফিসিয়াল ৳১৫০,০০০

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ এর দাম

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ-এর ফিচারগুলো:

প্রথম রিলিজ ফেব্রুয়ারি ২০২০
রং মিরর ব্ল্যাক, মিরর পার্পল, মিরর গোল্ড
কানেক্টিভিটি
নেটওয়ার্ক ২জি, ৩জি, ৪জি
সিম ন্যানো-সিম, ইলেক্ট্রনিক সিম কার্ড (ই-সিম)
ওয়্যারলেস ল্যান ডুয়াল-ব্র্যান্ড, ওয়াইফাই ডিরেক্ট, ওয়াইফাই হটস্পট
ব্লুটুথ ৫.০, এ২ডিপি, এল ই
জিপিএস এ-জিপিএস, জিএলওএনএএসএস, বিডিএস, গ্যালিলিও
রেডিও
এইএসবি ভি৩.১
ওটিজি
এইএসবি টাইপ-সি
এনএফসি
বডি
স্টাইল ভারটিক্যাল ফোল্ডেবল স্মার্টফোন
ম্যাটেরিয়াল গ্লাস ফ্রন্ট, অ্যালুমিনিয়াম ফ্রেম
জল নিরোধক
ডাইমেনশন ১৬৭.৩ x ৭৩.৬ x ৭.২ মিলিমিটার (আনফোল্ডেড)

৮৭.৪ x ৭৩.৬ x ১৭.৩ মিলিমিটার (ফোল্ডেড)

ওজন ১৮৩ গ্রাম
ডিসপ্লে
আকার ৬.৭ ইঞ্চি
রেজুলেশন ফুল এইচডি+ ১০৮০ x ২৬৩৬ পিক্সেলস (৪২৫ পিপিআই)
টেকনোলজি ডায়নামিক অ্যামোলেড ফোল্ডেবল টাচস্ক্রীন
সুরক্ষা ✖ (ক্র্যাচ-রেজিস্টেন্স)
ফিচার মাল্টিটাচ
কভার ডিসপ্লে ১.১″ সুপার অ্যামোলেড, ১১২ x ৩০০ পিক্সেলস, কর্ণিং গরিলা গ্লাস ৬, সবসময় ডিসপ্লেতে
ব্যাক ক্যামেরা
রেজুলেশন ডুয়াল ১২+১২ মেগাপিক্সেল
ফিচার ডুয়াল পিক্সেল পিডিএএফ, ওআইএস, আলট্রাওয়াইড, ওয়াইড, এলইডি ফ্লাশ এবং আরো অনেক কিছু
ভিডিও রেকর্ডিং আলট্রা এইচডি ৪কে (২১৬০পি),এইচডিআর১০+
ফ্রন্ট ক্যামেরা
রেজুলেশন ১০ মেগাপিক্সেল
ফিচার ডেফট সেন্সর, ওয়াইড, কভার ক্যামেরা এবং আরো অনেক কিছু
ভিডিও রেকর্ডিং আলট্রা এইচডি ৪কে (২১৬০পি)
ব্যাটারি
ধরন ও ধারণ ক্ষমতা লিথিয়াম-পলিমার ৩৩০০ এমএএইচ (মিলি অ্যাম্পিয়ার) (নন-রিমুভাল)
ফাস্ট চার্জিং ১৫ ওয়াট ফাস্ট ব্যাটারি চার্জিং, ওয়্যারলেস চার্জিং
পারফর্মেন্স
অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ১০ (ওয়ান ইউআই ২)
চিপসেট কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫+ (৭ এনএম)
র‍্যাম ৮ জিবি
প্রসেসর অক্টা-কোর, ২.৯৫ গিগাহার্জ পর্যন্ত
জিপিইউ অ্যাড্রেনো ৬৪০
স্টোরেজ
রোম ২৫৬ জিবি (ইউএফএস ৩.০)
মাইক্রো এসডি স্লট
সাউন্ড
৩.৫ এম এম জ্যাক
ফিচার লাউডস্পিকার (স্টেরিও স্পিকার), একেজি টিউন্ড
সুরক্ষা
ফিঙ্গারপ্রিন্ট সাইড মাউন্টেড
ফেস আনলক
অন্যান্য
নোটিফিকেশন লাইট
সেন্সর ফিঙ্গারপ্রিন্ট, এক্সেলেরোমিটার, জায়রো, প্রক্সিমিটি, কোমেগাপিক্সেলেস, ব্যারোমিটার
আরো স্যামসাং পে (ভিসা, মাস্টারকার্ড সার্টিফাইড)
উৎপাদন স্যামসাং

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ সবচেয়ে বড় আকর্ষণীয় দিক এটাই যে এটি একটি ফোল্ডেবল স্মার্টফোন। তাও যা বাজারে থাকা অন্যান্য ফোল্ডেবল স্মার্টফোন্গুলো থেকে আলাদা। যারা একটি ফোনের ফিচারের পাশাপাশি স্টাইলেও প্রাধান্য দেয় তাদের জন্য এই ফোনটি একদম উপযুজুক্ত।এই ফোনটির স্ক্রীন মাঝ বরাবর উপর থেকে নিচে ফোল্ড হয়। আর আনফোল্ডেড অবস্থায় ফোনটির স্ক্রীন সাইজ ৬.৭ ইঞ্চি, যা একটি ফুল এইচডি+ হাই কোয়ালিটি ডায়নামিক অ্যামোলেড স্ক্রীন। এই স্ক্রীনটি আপনাকে দেবে যেকোনো কিছুর বড় ও স্পষ্ট ভিউ। ফোনটির পেছনে ৪কে ভিডিও রেকর্ডিং অপশনসহ ডুয়াল ১২+১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা, যার ভিডিও কোয়ালিটি এক কথায় অসাধারন। এবং এর সামনে আছে ১০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ফোনটিতে আছে ৩৫০০ এমএএইচ (মিলি অ্যাম্পিয়ার) ব্যাটারি যা আপনাকে দেবে দীর্ঘ ব্যাটারি লাইফ। কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫+ (৭ এনএম) চিপসেট এর সাথে ৮ জিবি র‍্যাম, ২.৯৬ গিগাহার্জ অক্টা-কোর সিপিইউ ও অ্যাড্রেনো ৬৪০ জিতারনাল যা ফোনটিকে করে তুলেছে দারুন গতিময়। ফোনটিতে আরো আছে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর যা অনেক অন্য যেকোনো ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর থেকে অনেক দ্রুত। ফিচার এর দিক থেকে চিন্তা করলে  ফোনটির দাম আসলেই যথাযথ।

স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোল্ড (Samsung Galaxy Fold)

দামঃ

অফিসিয়াল ✭
আনঅফিসিয়াল ৳১৬০,০০০

৳১৭০,০০০ ৫জি ভার্সন

স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোল্ড এর দাম

স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোল্ড-এর ফিচারগুলো:

প্রথম রিলিজ সেপ্টেম্বর ২০১৯
রং স্পেস সিলভার, কসমস ব্ল্যাক, মারটিয়ান গ্রীন, অ্যাস্ট্রো ব্লু
কানেক্টিভিটি
নেটওয়ার্ক ২জি, ৩জি, ৪জি, (৫জি ৫জি ভার্সনে)
সিম ন্যানো-সিম, ইলেক্ট্রনিক সিম কার্ড (ই-সিম)
ওয়্যারলেস ল্যান ডুয়াল-ব্র্যান্ড, ওয়াইফাই ডিরেক্ট, ওয়াইফাই হটস্পট
ব্লুটুথ ৫.০, এ২ডিপি, এল ই, এপিটিএক্সএইচডি
জিপিএস এ-জিপিএস, জিএলওএনএএসএস, বিডিএস, গ্যালিলিও
রেডিও
এইএসবি ভি৩.১
ওটিজি
এইএসবি টাইপ-সি
বডি
স্টাইল ফোল্ডেবল স্মার্টফোন
ম্যাটেরিয়াল গ্লাস ফ্রন্ট, প্লাস্টিক বডি
জল নিরোধক
ডাইমেনশন ১৬০.৯ x ১১৭.৯ x ৬.৯ মিলিমিটার (আনফোল্ডেড)

১৬০.৯ x ৬২.৯ x ১৫.৫ মিলিমিটার (ফোল্ডেড)

ওজন ২৬৩ গ্রাম
ডিসপ্লে
আকার ৭.৩ ইঞ্চি
রেজুলেশন ফুল এইচডি+ ১৫৩৬ x ২১৫২ পিক্সেলস (৩৬২ পিপিআই)
টেকনোলজি ডায়নামিক অ্যামোলেড টাচস্ক্রীন
সুরক্ষা
ফিচার মাল্টিটাচ
ডিসপ্লে কভার ৪.৬ ইঞ্চি, সুপার অ্যামোলেড, ৭২০ x ১৬৮০ পিক্সেলস
ব্যাক ক্যামেরা
রেজুলেশন ট্রিপল ১২+১২+১৬ মেগাপিক্সেল
ফিচার ডুয়াল পিক্সেল পিডিএএফ, ওআইএস, আলট্রাওয়াইড, টেলিফটো, ২x অপ্টিক্যাল জুম , এলইডি ফ্লাশ এবং আরো অনেক কিছু
ভিডিও রেকর্ডিং আলট্রা এইচডি ৪কে (২১৬০পি), জায়রো-ইআইএস (১০৮০পি), এইচডিআর১০
ফ্রন্ট ক্যামেরা
রেজুলেশন ডুয়াল ১০+৮ মেগাপিক্সেল
ফিচার ডেফট সেন্সর, ওয়াইড, কভার ক্যামেরা এবং আরো অনেক কিছু
ভিডিও রেকর্ডিং আলট্রা এইচডি ৪কে (২১৬০পি), জায়রো-ইআইএস
ব্যাটারি
ধরন ও ধারণ ক্ষমতা লিথিয়াম-পলিমার ৪৩৮০ এমএএইচ (মিলি অ্যাম্পিয়ার) (নন-রিমুভাল)
ফাস্ট চার্জিং ১৫ওয়াট ফাস্ট ব্যাটারি চার্জিং, ১৫ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং, ৯ওয়াট রিভার্স চার্জিং
পারফর্মেন্স
অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড পাই ভি৯.০, অ্যান্ড্রয়েড ১০ (ওয়ান ইউআই ২.১) আপগ্রেড করা যাবে
চিপসেট কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ (৭ এনএম)
র‍্যাম ১২ জিবি
প্রসেসর অক্টা-কোর, ২.৮৪ গিগাহার্জ পর্যন্ত
জিপিইউ অ্যাড্রেনো ৬৪০
স্টোরেজ
রোম ৫১২ জিবি
মাইক্রো এসডি স্লট
সাউন্ড
৩.৫ এম এম জ্যাক
ফিচার লাউডস্পিকার, ডলবি অ্যাটমোস, একেজি টিউন্ড
সুরক্ষা
ফিঙ্গারপ্রিন্ট সাইড মাউন্টেড
ফেস আনলক
অন্যান্য
সেন্সর এক্সেলেরোমিটার, জায়রো, প্রক্সিমিটি, ফিঙ্গারপ্রিন্ট, ই-কম্পাস, ব্যারোমিটার
আরো – স্যামসাং পে (ভিসা, মাস্টারকার্ড সার্টিফাইড)

– স্যামসাং ডেক্স

– বিক্সবি

উৎপাদন স্যামসাং

ফোল্ড সিরিজের স্যামসাং-এর আরেকটি ফোন স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোল্ড। এই ফোনটিকে বই এর মতো করে আনফোল্ড করতে হয়। আনফোল্ডেড অবস্থায় এর স্ক্রীন সাইজ ৭.৩ ইঞ্চি, যাতে আছে ফুল এইচডি+ হাই কোয়ালিটি ডায়নামিক অ্যামোলেড স্ক্রীন। ফোনটির পিছনের ক্যামেরাতে রয়েছে ট্রিপল ১২+১২+১৬ মেগাপিক্সেল, সাথে ৪কে ভিডিও রেকর্ডিং অপশন যা আপনার ছবি তোলা বা ভিডিও করার ক্ষেত্রে দেবে এক অসাধারণ অনুভূতি। ফ্রন্ট ক্যামেরাতে রয়েছে ডুয়াল ১০+৮ মেগাপিক্সেল। মোবাইলটিতে ব্যাটারি রয়েছে ৪৩৮০ এমএএইচ (মিলি অ্যাম্পিয়ার) এবং ১৫ওয়াট ফাস্ট চার্জিং। আর এই ফোনটিকে অসাধারন গতিময় করে তুলেছে ১২ জিবি র‍্যাম, ফাস্ট অক্টা-কোর সিপিইউ এবং শক্তিশালী অ্যাড্রেনো ৬৪০ জিপিইউ এবং কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ (৭ এনএম) চিপসেট। ফ্লিপ এর মতই এই ফোনটিতেও আছে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ আলট্রা (Samsung Galaxy S20 Ultra)

দামঃ

অফিসিয়াল ✭ ৳১২৯,৯৯৯ ৫জি ১২৮ জিবি
আনঅফিসিয়াল ৳১১০,০০০ ৫জি ১২৮ জিবি

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ আলট্রা এর দাম

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ আলট্রা-এর ফিচারগুলো:

প্রথম রিলিজ মার্চ ২০২০
রং কসমিক গ্রে, কসমিক ব্ল্যাক
কানেক্টিভিটি
নেটওয়ার্ক ২জি, ৩জি, ৪জি, ৫জি
সিম হাইব্রিড ডুয়াল ন্যানো সিম
ওয়্যারলেস ল্যান ডুয়াল-ব্র্যান্ড, ওয়াইফাই ডিরেক্ট, ওয়াইফাই হটস্পট
ব্লুটুথ ভি৫.০ – এ২ডিপি, এল ই, এপিটিএক্স
জিপিএস এ-জিপিএস, জিএলওএনএএসএস, বিডিএস, গ্যালিলিও
রেডিও
এইএসবি ভি৩.১
ওটিজি
এইএসবি টাইপ-সি
এনএফসি
বডি
স্টাইল পাঞ্চ-হোল
ম্যাটেরিয়াল গরিলা গ্লাস ৬ ফ্রন্ট ও ব্যাক, মেটাল ফ্রেম
জল নিরোধক আইপি৬৮ ডাস্ট / ওয়াটারপ্রুফ (১.৫এম for ৩০ মিনিট পর্যন্ত)
ডাইমেনশন ১৬৬.৯ x ৭৬ x ৮.৮ মিলিমিটার
ওজন ২২২ গ্রাম
ডিসপ্লে
আকার ৬.৯ ইঞ্চি
রেজুলেশন কোয়াডএইচডি+ ৩২০০ x ১৪৪০ পিক্সেলস (৫১১ পিপিআই)
টেকনোলজি ডায়নামিক অ্যামোলেড ২X টাচস্ক্রীন
সুরক্ষা কর্ণিং গরিলা গ্লাস ৬
ফিচার এইচডিআর১০+, সবসময় ডিসপ্লেতে, ১২০Hz (ফুল এইচডি রেজুলেশন)
ব্যাক ক্যামেরা
রেজুলেশন কোয়াড ১০৮+৪৮+১২ মেগাপিক্সেল + টিওএফ ৩ডি ক্যামেরা
ফিচার পিডিএএফ, periscope, ওআইএস, টেলিফটো, আলট্রাওয়াইড, ১০x হাইব্রিড অপ্টিক্যাল জুম এবং আরো অনেক কিছু
ভিডিও রেকর্ডিং ৮কে (৪৩২০পি) পর্যন্ত, এইচডিআর১০+, ডুয়াল-ভিডিও রেকর্ডিং, জায়রো-ইআইএস, ওআইএস
ফ্রন্ট ক্যামেরা
রেজুলেশন ৪০ মেগাপিক্সেল
ফিচার এফ/২.২, পিডিএএফ, লাইভ ফোকাস এবং আরো অনেক কিছু
ভিডিও রেকর্ডিং আলট্রা এইচডি ৪কে (২১৬০পি), অটো-এইচডিআর, ডুয়াল-ভিডিও কল
ব্যাটারি
ধরন ও ধারণ ক্ষমতা লিথিয়াম-পলিমার ৫০০০ এমএএইচ (মিলি অ্যাম্পিয়ার) (নন-রিমুভাল)
ফাস্ট চার্জিং ৪৫ওয়াট ফাস্ট চার্জিং: ১০০% ৭৪ মিনিটে (২৫ওয়াট চার্জার)

১৫ওয়াট ফাস্ট কিউআই/পিএমএ ওয়্যারলেস চার্জিং

এইএসবি পাওয়ার ৩.০

রিভার্স চার্জ ৯ওয়াট রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং
পারফর্মেন্স
অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ১০ (ওয়ান ইউআই ২)
চিপসেট এক্সিনস ৯৯০ (৭ এনএম+)
র‍্যাম ১২ / ১৬ জিবি
প্রসেসর অক্টা-কোর, ২.৭৩ গিগাহার্জ পর্যন্ত
জিপিইউ মালি-জি৭৭ মেগাপিক্সেল১১
স্টোরেজ
রোম ১২৮ / ২৫৬ / ৫১২ জিবি
মাইক্রো এসডি স্লট সিম ২ স্লট
সাউন্ড
৩.৫ এম এম জ্যাক
ফিচার লাউডস্পিকার (স্টেরিও স্পিকার), ৩২-বিট/৩৮৪কেএইচজেড অডিও, একেজি দ্বারা টিউন্ড
সুরক্ষা
ফিঙ্গারপ্রিন্ট ইন-ডিসপ্লে (আলট্রাসনিক)
ফেস আনলক
আরো স্যামসাং নক্স সিকিউরিটি এবং সিকিউরিটি ফোল্ডার
অন্যান্য
নোটিফিকেশন লাইট পাঞ্চ-হোল ক্যামেরা সাইড দিয়ে গ্লো
সেন্সর ফিঙ্গারপ্রিন্ট, এক্সেলেরোমিটার, জায়রো, প্রক্সিমিটি, ব্যারোমিটার
আরো ফিচার – স্যামসাং পে (ভিসা, মাস্টারকার্ড সার্টিফাইড)

– ওয়্যারলেস স্ক্রীন মিররিং এবং ডিসপ্লেপোর্ট (এইচডিএমআই), এইএসবি টাইপ-সি

– স্যামসাং ডেক্স এক্সপেরিয়েন্স

– বিক্সবি

উৎপাদন স্যামসাং

বর্তমান বাজারে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস সিরিজের সবচেয়ে হাই পারফরমিং ফোন স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ আলট্রা। এতে আছে ৬.৯ ইঞ্চি কোয়াডএইচডি+ ডায়নামিক অ্যামোলেড ২X স্ক্রীন ডিসপ্লে। আরও রয়েছে পাঞ্চ-হোল ফ্রন্ট ক্যামেরা ডিজাইন যা আপনাকে দেবে এক অসাধারণ অনুভূতি। ফোনটির পেছনের ক্যামেরা তে রয়েছে কোয়াড ১০৮+৪৮+১২+০.৩ মেগাপিক্সেল সাথে পিডিএএফ, ওআইএস, পেরিস্কোপ, ১০x হাইব্রিড অপ্টিকাল জুম , টেলিফটো, আলট্রাওয়াইড যার মাধ্যমে আপনি ১০ গুন পর্যন্ত জুম করতে পারবেন খুব সহজেই কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই, এবং করতে পারবেন ৮কে পর্যন্ত ভিডিও রেকর্ডিং। ফ্রন্ট ক্যামেরা টি ৪০ মেগাপিক্সেল যার মাধ্যমে আপনি অত্যন্ত সুন্দর সেলফি তুলতে পারবেন। গ্যালাক্সি এস২০ আলট্রা ফোনটি তে রয়েছে ৫০০০ এমএএইচ (মিলি অ্যাম্পিয়ার) ব্যাটারি সাথে ৪৫ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা। এটি তে র‍্যাম আছে ১২/১৬ জিবি, ২.৭৩ গিগাহার্জ পর্যন্ত ক্ষমতা সম্পন্ন অক্টা-কোর সিপিইউ এবং মালি-জি৭৭ এমপি১১ জিপিইউ এবং সাথে একটি ৭ এনএম+ এক্সিনস ৯৯০ চিপসেট। এর পাশাপাশি আলট্রাসনিক ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ১০+ (Samsung Galaxy Note10+)

দামঃ

অফিসিয়াল ✭ ৳১১৩,৯০০ ৪জি ১২/২৫৬ জিবি
আনঅফিসিয়াল ৳৭০,০০০৪জি ১২/২৫৬ জিবি

৳৭৫,০০০ ৫জি ১২/২৫৬ জিবি

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ১০+ এর দাম

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ১০+ এর ফিচারগুলো:

প্রথম রিলিজ মে ২০১৯
রং আউরা গ্লো, আউরা হোয়াইট, আউরা ব্ল্যাক
কানেক্টিভিটি
নেটওয়ার্ক ২জি, ৩জি,৪জি (৫জি ৫জি ভার্সনে)
সিম হাইব্রিড ডুয়াল ন্যানো সিম
ওয়্যারলেস ল্যান ডুয়াল-ব্র্যান্ড, ওয়াইফাই ডিরেক্ট, ওয়াইফাই হটস্পট
ব্লুটুথ ভি৫.০ – এ২ডিপি, এল ই, এপিটিএক্স
জিপিএস এ-জিপিএস, জিএলওএনএএসএস, বিডিএস, গ্যালিলিও
রেডিও এফএম
এইএসবি ভি৩.১
ওটিজি
এইএসবি টাইপ-সি
বডি
স্টাইল ম্যাক্স-ভিউ পাঞ্চ-হোল ফ্যাব্লেট
ম্যাটেরিয়াল গোরিলা গ্লাস ফ্রন্ট এবং ব্যাক, স্টেইনলেস স্টিল ফ্রেম
জল নিরোধক আইপি৬৮ ডাস্ট / ওয়াটারপ্রুফ (১.৫এম ৩০ মিনিট পর্যন্ত)
ডাইমেনশন ১৬২.৩ x ৭৭.২ x ৭.৯ মিলিমিটার
ওজন ১৯৬ গ্রাম
ডিসপ্লে
আকার ৬.৮ ইঞ্চি
রেজুলেশন কোয়াডএইচডি+ ৩০৪০ x ১৪৪০ পিক্সেলস (৪৯৮ পিপিআই)
টেকনোলজি ডায়নামিক অ্যামোলেড টাচস্ক্রীন
সুরক্ষা করনিং গোরিলা গ্লাস
ফিচার মাল্টিটাচ,এইচডিআর১০+, সব সময় ডিসপ্লেতে, স্টায়লাস পেন
ব্যাক ক্যামেরা
রেজুলেশন কোয়াড ১২+১২+১৬ মেগাপিক্সেল এবং টিওএফ ৩ডি ভিজিএ
ফিচার ডুয়াল পিক্সেল পিডিএএফ, ওআইএস, ১.৪, ১২৩°, ৭৭° এবং ৪৫° এফওবি এবং আরও অনেক
ভিডিও রেকর্ডিং আলট্রা এইচডি ৪কে (২১৬০পি),এইচডিআর, ডুয়াল-ভিডিও রেকর্ডিং, ভিডিআইএস
ফ্রন্ট ক্যামেরা
রেজুলেশন ১০ মেগাপিক্সেল
ফিচার ডুয়াল পিক্সেল পিডিএএফ, এফ/২.২, ৮০° ওয়াইড, লাইভ ফোকাস এবং আরও অনেক
ভিডিও রেকর্ডিং আলট্রা এইচডি ৪কে (২১৬০পি), অটো-এইচডিআর, ডুয়াল-ভিডিও কল, ভিডিআইএস
ব্যাটারি
ধরণ ও ধারণ ক্ষমতা লিথিয়াম-আইওন ৪৩০০ এমএএইচ (মিলি অ্যাম্পিয়ার) (নন-রিমুভাল)
ফাস্ট চার্জিং ৪৫ওয়াট (২৫ওয়াট চার্জার), ওয়্যারলেস চার্জিং
রিভার্স চার্জ
পারফর্মেন্স
অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড পাই ভি৯.০, অ্যান্ড্রয়েড ১০ (ওয়ান ইউআই ২) আপগ্রেড করা যাবে
চিপসেট এক্সিনস ৯৮২৫ (৭ এনএম)
র‍্যাম ১২ জিবি
প্রসেসর অক্টা-কোর, ২.৭৩ গিগাহার্জ পর্যন্ত
জিপিইউ মালি-জি৭৬ মেগাপিক্সেল১২
স্টোরেজ
রোম ২৫৬ / ৫১২ জিবি
মাইক্রো এসডি স্লট ১ টিবিপর্যন্ত (সিম ২ স্লট)
সাউন্ড
৩.৫ এম এম জ্যাক
ফিচার লাউডস্পিকার, ডল্বি আট্মস
সুরক্ষা
ফিঙ্গারপ্রিন্ট আলট্রাসনিক ইন-ডিসপ্লে
ফেস আনলক
আরও স্যামসাং নক্স সিকিউরিটি এবং সিকিউরিটি ফোল্ডার
অন্যান্য
নোটিফিকেশন লাইট পাঞ্চ-হোল ক্যামেরার সাইড দিয়ে গ্লো
সেন্সর ফিঙ্গারপ্রিন্ট, এক্সেলেরোমিটার, জায়রো, প্রক্সিমিটি, ব্যারোমিটার, জিওম্যাগনেটিক
আরও ফিচার – স্যামসাং পে (ভিসা, মাস্টারকার্ড সার্টিফাইড)

– ওয়্যারলেস স্ক্রীন মিররিং এবং ডিসপ্লেপোর্ট (এইচডিএমআই) over এইএসবি টাইপ-সি

– স্যামসাং ডেক্স এক্সপেরিয়েন্স

– বিক্সবি

উৎপাদন স্যামসাং

গ্যালাক্সি নোট সিরিজের ১০+ মডেলটি বাজারে এসেছে ১২ জিবি র‍্যাম, ৭ এনএম আলট্রা ফাস্ট প্রসেসরের সাথে। এর সাথে আরও আছে ১ টেরাবাইট মাইক্রো এসডি অপশন, অসাধারণ ক্যামেরা, ৪৫ ওয়াট সুপার ফাস্ট চার্জিং সুবিধা, ওয়্যারলেস স্ক্রীন মিররিং এবং এইচডিএমআই, স্যামসাং ডেক্স এক্সপেরিয়েন্স এবং একটি ৬.৮ ইঞ্চি কোয়াড এইচডি+ ডায়নামিক অ্যামোলেড স্ক্রীন। ফোনটি তে রয়েছে ১০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা যা আশ্চর্যজনক ভাবে ভাল। নোট ১০+মোবাইল ফোনটি তে রয়েছে টপ-নচ ক্যামেরা, বিশাল ব্যাটারি ও ৪৫ওয়াট ফাস্ট চার্জিং। ফোনটির আরও একটি দুর্দান্ত ক্ষমতা যে এটি ধুলা ও জল নিরোধক। ফোনটি ১.৫এম পানিতে ৩০ মিনিট পর্যন্ত ডুবে থাকলেও নিরাপদ থাকবে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০+ (Samsung Galaxy S20+)

দামঃ

অফিসিয়াল ✭ ৳৯৯,৯৯৯৪জি ১২৮ জিবি
আনঅফিসিয়াল ৳৯২,৫০০৪জি ১২৮ জিবি

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০+ এর দাম

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০+ এর ফিচারগুলো:

প্রথম রিলিজ মার্চ ২০২০
রং কজমিক গ্রে, ক্লাউড ব্লু, কজমিক ব্ল্যাক
কানেক্টিভিটি
নেটওয়ার্ক ২জি, ৩জি,৪জি, (৫জি ৫জি ভার্সনে)
সিম হাইব্রিড ডুয়াল ন্যানো সিম
ওয়্যারলেস ল্যান ডুয়াল-ব্র্যান্ড, ওয়াইফাই ডিরেক্ট, ওয়াইফাই হটস্পট
ব্লুটুথ ভি৫.০ – এ২ডিপি, এল ই, এপিটিএক্স
জিপিএস এ-জিপিএস, জিএলওএনএএসএস, বিডিএস, গ্যালিলিও
রেডিও
এইএসবি ভি৩.১
ওটিজি
এইএসবি টাইপ-সি
এনএফসি
বডি
স্টাইল পাঞ্চ-হোল
ম্যাটেরিয়াল গোরিলা গ্লাস ৬ ফ্রন্ট এবং ব্যাক, অ্যালুমিনিয়ম ফ্রেম
জল নিরোধক আইপি৬৮ ডাস্ট / ওয়াটারপ্রুফ (১.৫এম ৩০ মিনিট পর্যন্ত)
ডাইমেনশন ১৬১.৯ x ৭৩.৭ x ৭.৮ মিলিমিটার
ওজন ১৮৬ গ্রাম
ডিসপ্লে
আকার ৬.৭ ইঞ্চি
রেজুলেশন কোয়াডএইচডি+ ৩২০০ x ১৪৪০ পিক্সেলস (৫২৫ পিপিআই)
টেকনোলজি ডায়নামিক অ্যামোলেড ২X টাচস্ক্রীন
সুরক্ষা করনিং গোরিলা গ্লাস ৬
ফিচার এইচডিআর১০+, সব সময় ডিসপ্লেতে, ১২০এইচজেড (ফুল এইচডি রেজুলেশন পর্যন্ত)
ব্যাক ক্যামেরা
রেজুলেশন কোয়াড ১২+৬৪+১২ মেগাপিক্সেল + টিওএফ ৩ডি ক্যামেরা
ফিচার ডুয়াল পিক্সেল পিডিএএফ, ওআইএস, টেলিফটো, আলট্রাওয়াইড, ৩x হাইব্রিড অপ্টিকাল জুম এবং আরও অনেক
ভিডিও রেকর্ডিং ৮কে (৪৩২০p) পর্যন্ত,এইচডিআর১০+, ডুয়াল-ভিডিও রেকর্ডিং, জায়রো-ইআইএস, ওআইএস
ফ্রন্ট ক্যামেরা
রেজুলেশন ১০ মেগাপিক্সেল
ফিচার এফ/২.২, পিডিএএফ, লাইভ ফোকাস এবং আরও অনেক
ভিডিও রেকর্ডিং আলট্রা এইচডি ৪কে (২১৬০পি), অটো-এইচডিআর, ডুয়াল-ভিডিও কল
ব্যাটারি
ধরণ ও ধারণ ক্ষমতা লিথিয়াম-পলিমার ৪৫০০ এমএএইচ (মিলি অ্যাম্পিয়ার) (নন-রিমুভাল)
ফাস্ট চার্জিং ২৫ওয়াট ফাস্ট চার্জিং

১৫ওয়াট ফাস্ট কিউআই/পিএমএ ওয়্যারলেস চার্জিং

এইএসবি পাওয়ার ৩.০

রিভার্স চার্জ ৯ওয়াট রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং
পারফর্মেন্স
অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ১০ (ওয়ান ইউআই ২)
চিপসেট এক্সিনস ৯৯০ (৭ এনএম+)
র‍্যাম ৮ জিবি (৪জি ভার্সন), ১২ জিবি (৫জি ভার্সন)
প্রসেসর অক্টা-কোর, ২.৭৩ গিগাহার্জ পর্যন্ত
জিপিইউ মালি-জি৭৭ মেগাপিক্সেল১১
স্টোরেজ
রোম ১২৮ জিবি (৪জি ভার্সন), ১২৮/২৫৬/৫১২ জিবি (৫জি ভার্সন), ইউএফএস ৩.০
মাইক্রো এসডি স্লট সিম ২ স্লট
সাউন্ড
৩.৫ এম এম জ্যাক
ফিচার লাউডস্পিকার (স্টেরিও স্পিকার), ৩২-বিট/৩৮৪কেএইচজেড অডিও, একেজি দ্বারা টিউন্ড
সুরক্ষা
ফিঙ্গারপ্রিন্ট ইন-ডিসপ্লে (আলট্রাসনিক)
ফেস আনলক
আরও স্যামসাং নক্স সিকিউরিটি এবং সিকিউরিটি ফোল্ডার
অন্যান্য
নোটিফিকেশন লাইট পাঞ্চ-হোল ক্যামেরা সাইড দিয়ে গ্লো
সেন্সর ফিঙ্গারপ্রিন্ট, এক্সেলেরোমিটার, জায়রো, প্রক্সিমিটি, ব্যারোমিটার
আরও ফিচার – স্যামসাং পে (ভিসা, মাস্টারকার্ড সার্টিফাইড)

– ওয়্যারলেস স্ক্রীন মিররিং এবং ডিসপ্লেপোর্ট (এইচডিএমআই) এইএসবি টাইপ-সি

– স্যামসাং ডেক্স এক্সপেরিয়েন্স

– বিক্সবি

উৎপাদন স্যামসাং

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ২০+ মোবাইল ফোনটি বাজারে এসেছে ৬.৭ ইঞ্চি কোয়াড এইচডি+ ডায়নামিক অ্যামোলেড ২X স্ক্রীন এর সাথে। এটি তে রয়েছে পাঞ্চ-হোল ফ্রন্ট ক্যামেরা ডিসাইন, পেছনের ক্যামেরা তে রয়েছে কোয়াড ১২+৬৪+১২+০.৩ মেগাপিক্সেল সাথে পিডিএএফ, ওআইএস, ৩x হাইব্রিড অপ্টিকাল জুম, টেলিফটো, আলট্রাওয়াইড এবং ৮কে পর্যন্ত ভিডিও রেকর্ডিং ক্ষমতা যার মান অসাধারন। সামনের ক্যামেরা ১০ মেগাপিক্সেল না সেলফি তুলতেও দুর্দান্ত। গ্যালাক্সি এস২০+ মোবাইলটি তে রয়েছে ৪৫০০ এমএএইচ (মিলি অ্যাম্পিয়ার) ব্যাটারি সাথে ২৫ওয়াট ফাস্ট চার্জিং। এটি ৭ এনএম+ এক্সিনস ৯৯০ চিপসেট সমৃদ্ধ এর সাথে ডিভাইস টির ৮/১২ জিবি র‍্যাম, ২.৭৩ গিগাহার্জ অক্টা-কোর সিপিইউ এবং মালি-G৭৭ এমপি১১ জিপিইউ ফোনটিকে করে তুলেছে অনেক ফাস্ট। ফোনটি তে ১২৮/২৫৬/৫১২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ এর সাথে শেয়ারড মাইক্রো এসডি স্লট সাথে হাইব্রিড ডুয়াল সিম। এই ফোনটি তেও রয়েছে আলট্রাসনিক ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। এছাড়াও অন্যান্য ফিচারের গুলোর মদ্ধে রয়েছে, ফেস আনলক, স্যামসাং ডেক্স, বিক্সবি, ফাস্ট ওয়্যারলেস চার্জিং, রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং এবং আরও অনেক দারুন সব ফিচার।

শেষকথা

সামসাং এর ফ্ল্যাগশিপ ফোনগুলোর দাম আকাশ ছোঁয়া হলেও গ্রাহক চাহিদার উপর নির্ভর করে প্রত্যেক ধরণের মানুষের জন্যই একটি করে মডেল আছে। সর্বোপরি আপনার বাজেটে যদি সীমাবদ্ধতা না থাকে তাহোলে আপনার জন্য আছে সামসাং এর এই প্রিমিয়াম মোবাইলগুলো। এই মডেল গুলোর ডিজাইন এবং ফিচার যেমন ইউনিক এবং প্রিমিয়াম, তেমনি আপনি এই ফোনগুলো ব্যবহার করার সময় অন্যদের থেকে আলাদা করে তুলবে। আর এই জন্যেই স্যামসাং সাড়া পৃথিবীতে অন্যতম জনপ্রিয় মোবাইল ব্র্যান্ড। এই সব মিলিয়ে বিবেচনা করলে এই মডেলগুলোর দাম আসলেই যুক্তিযুক্ত।

আশা করি এই আর্টিকেলটি আমি সামসাং এর বর্তমান বাজার দর সম্পর্কে একটা পরিস্কার ধারণা দিতে পেরেছি। যা আপনাকে আপনার পছন্দের নতুন মডেলের মোবাইলটি কিনতে সাহায্য করবে।

Back to top button